Sale!

সহজ কুরআন ২য় খণ্ড

Title সহজ কুরআন (২য় খণ্ড) (কুরআনের ৩০তম পারার প্রথম ২১টি সূরা ও তার ব্যাখ্যা)

Author আসিফ সিবগাত ভূঞা

Publisher আদর্শ

ISBN 9789849266501

Edition 1st Published, 2018

Number of Pages 256

Country বাংলাদেশ

Language বাংলা

৳ 400.00 ৳ 320.00

SKU: 9789849266501 Categories: , ,

ভূমিকা

সহজ কুরআন প্রজেক্টের ব্যাপারে আমার মূল যে ভূমিকা, তা আমি সহজ কুরআন প্রথম খণ্ডে বলে দিয়েছি। এখানে আমি কেবল বাড়তি কিছু কথা বলব— যা না বললেই নয়।

এই দ্বিতীয় খণ্ডে মোট ২১টি সুরা নিয়ে কাজ করা হয়েছে। সহজ কুরআনের প্রথম খণ্ডে কুরআনের ৩০তম বা শেষ পারার যে ১৬টি সুরা ছিল, সেগুলো বাদ দিয়ে পারাটির বাকি সব সুরা এই খণ্ডে নিয়ে আসা হয়েছে। অতএব এ দুই খণ্ডে কুরআনের শেষ পারার সব সুরা পাঠকরা পেয়ে যাচ্ছেন (তা ছাড়া প্রথম খণ্ডে কুরআনের প্রথম সুরা ফাতিহার ব্যাখ্যা রয়েছে)। আমাদের লক্ষ্য থাকবে পরবর্তী খণ্ডগুলোতে আগে কুরআনের ২৭, ২৮ ও ২৯তম পারা নিয়ে কাজ শেষ করা ইনশা আল্লাহ। এরপর আমরা প্রথম পারা থেকে শুরু করে (সুরা ফাতিহা বাদ দিয়ে) ২৬তম পারা নিয়ে কাজ করব।

পাঠকের মনে প্রশ্ন জাগতে পারে, এভাবে পেছন থেকে শুরু করে তারপর কেন সামনে যাওয়া হচ্ছে। কারণ, কুরআনের বর্তমান ক্রমানুযায়ী যে সুরাগুলো আছে সেভাবে ব্যাখ্যা না করে যে সুরাগুলো প্রথম দিকে মক্কায় অবতীর্ণ হয়েছে, সেগুলোর ব্যাখ্যা আগে আনতে চাই। প্রথম দিকে অবতীর্ণ সুরাগুলো সাধারণত আকারে ছোট এবং কুরআনের কপিতে এদের অবস্থান শেষের দিকে। কিন্তু এ সুরাগুলোই আমাদের বেশি পরিচিত এবং এগুলোতে ইসলামের প্রাথমিক প্রস্তাবনাগুলো সবচেয়ে কাব্যিক ও সাহিত্যিকভাবে বর্ণিত হয়েছে। এদের আগে বুঝে নিলে পরবর্তী সময়ে অবতীর্ণ (কিন্তু কুরআনে আগে স্থান পাওয়া) বড় বড় সুরা অনুধাবন করতে সুবিধা হবে।

এভাবে কুরআন শেখা কোনো আনকোরা পদ্ধতি নয়। সাহাবিরা শুধু যে এ পদ্ধতিতে কুরআন শিখেছেন তা-ই নয়, অন্যদেরও পরামর্শ দিয়েছেন কুরআনকে এভাবে শেখার ও বোঝার জন্য। প্রথমে অবতীর্ণ এবং কুরআনে শেষে স্থান পাওয়া ছোট সুরাগুলো আগে ভালো করে অনুধাবন করে এরপর বড় বড় সুরায় হাত দেওয়াটা আল্লাহর রাসুল (সা.) নিজেও শিখিয়েছেন সাহাবিদের এবং সাহাবিরা সেটাই অনুসরণ করেছেন। সাহাবি জুনদুব ইবন আবদিল্লাহ (রা.) বলেন: ‘আমরা কুরআন শেখার আগে ইমান শিখেছি। এরপর কুরআন শিখেছি, ফলে আমাদের ইমান আরও বৃদ্ধি পেয়েছে।’ [ইবন মাজাহ] শায়েখ ’ইমাদ বিন সালেহ আল-’উওয়াইয়িদ তার গ্রন্থে সাহাবির এ বক্তব্যে ইমানের অর্থ কী তা বোঝাতে গিয়ে বলেছেন যে ইমান বলতে এখানে কুরআনে প্রথমে অবতীর্ণ সুরাগুলোকে বোঝানো হয়েছে [ফান্ন তাদাব্বুরিল-কুরআন, পৃ: ৫১]।

উম্মুল মু’মিনীন ’আইশার (রা.) একটি বক্তব্য দিয়ে আমরা এ প্রসঙ্গের সফল সমাপ্তি টানতে পারি। তিনি বলেন: ‘প্রথমে অবতীর্ণ হয় ছোট সুরাগুলো যাতে জান্নাত ও জাহান্নামের বিশদ বর্ণনা আছে। যখন মানুষের ইসলাম পোক্ত হয়ে এল, তখন হালাল ও হারাম (সংক্রান্ত সুরা) অবতীর্ণ হলো। যদি প্রথমেই অবতীর্ণ হতো যে মদ পান কোরো না, তাহলে মানুষ বলত: মদ পান ছাড়তে পারব না। যদি প্রথমেই বলা হতো ব্যভিচার কোরো না, তাহলে মানুষ বলত: ব্যভিচার ছাড়া যাবে না। “এবং শেষ সময় হবে আরও ধ্বংসাত্মক ও আরও তিক্ত” [সুরা কামার: ৪৬]— এ আয়াত যখন অবতীর্ণ হয়, তখন আমি একজন ছোট মেয়ে— খেলাধুলা করতাম। আমি আল্লাহর রাসুলের (সা.) কাছে (স্ত্রী হিসেবে) চলে আসার আগ পর্যন্ত সুরা বাকারাহ বা নিসা অবতীর্ণ হয়নি।’ [বুখারি ৪৯৯৩]।

বইটি লেখার কাজে আমি জিশান জাকারিয়া শাহ ও গোলাম মাওলা খোকনকে তাদের পৃষ্ঠপোষকতা ও সাহায্যের জন্য ধন্যবাদ দিই এবং আল্লাহর কাছে তাদের জন্য দু’আ করি।

আসিফ সিবগাত ভূঞা

জানুয়ারি ২০১৮

ঢাকা

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “সহজ কুরআন ২য় খণ্ড”

Your email address will not be published. Required fields are marked *