বীক্ষণ প্রান্ত

৳ 255৳ 300

You Save: ৳ 45 (15%)

অনুসন্ধানে অরুচি তৈরি হলে ভিটামিন সি খেতে পারেন। ভিটামিন সি-তে অ্যালার্জি থাকলে নিঃশব্দে দেয়াল টপকে পুকুরে ডুবসাঁতার দিয়ে চিতল মাছ শিকার করলে কেউ আপত্তি তুলবে না; দিলাম প্রতিশ্রুতি!
তবে মুশকিল হলো, পুকুরে কি আদৌ চিতলের চাষ হয়, প্রশ্ন করলে উত্তর আবিষ্কারে কয়েক বছর সময় ব্যয়িত হবে। আছে সেই সময়ের মজুত, নাকি যত্রতত্র খরচ করে ফুরিয়ে ফেলেছেন? আপনাকে ইমপ্রেস করতে কতগুলো দুপুর বিকেল হয়ে গেল, কতগুলো নির্দোষ টি-ব্যাগ আত্মাহুতি দিল, প্রিয়জন ফিরিয়ে নিল আস্থার নির্মেদ স্পর্শ; ইমপ্রেস তবু করতেই হবে? কিসের এত দায় বলুন তো!
যদি না-ই জানেন, সামনে থেকে সরুন; মাথায় চড়ে হাঁটব…
কী অনুসন্ধান করবেন না জানলে রুচি-অরুচির সিদ্ধান্তে পৌঁছাবেন কীভাবে?—এটা কিন্তু গুরুতর জিজ্ঞাসা। আপনাকে ৭০৯ বিঘা জমি উইল করেছেন একজন; নৈতিকতার স্বার্থে তার পরিচয় উহ্য রাখতে হচ্ছে। উইলটা পৌঁছে দিলাম, জমি খোঁজার খেয়াল কিংবা দায় একান্তই আপনার। আমি তো ডাকহরকরা মাত্র

Book Info
Title বীক্ষণ প্রান্ত
Author মাহফুজ সিদ্দিকী হিমালয়
Publisher আদর্শ
ISBN 978-984-94696-5-0
Edition 1st Published, 2021
Number of Pages 152
Country বাংলাদেশ
Language বাংলা

আমার প্রতি বড় আপার সাত অভিযোগ
১. আরামপ্রিয়, শ্রমবিমুখ ও ইম্যাচিউর
২. অধ্যবসায়হীন
৩. কিঞ্চিৎ ভণ্ড
৪. অপরিমিত নার্সিসিস্ট
৫. যথেষ্ট জাহিরপ্রবণ
৬. বৈষয়িক বুদ্ধিতে নির্বোধ
৭. মনীষী সিনড্রোমে আক্রান্ত

বড় আপা প্রদত্ত পাঁচ উপাধি
১. মানিক সোনা
২. জানের শত্রু ট্যাপা
৩. আত্মাপাখি ভাই
৪. কুকুরের চেয়েও অধম
৫. ডাস্টবিনের চেয়েও অপরিষ্কার

লেখক পরিচিতি অংশে সব কথা বড় আপার কেন? কারণ আমার জীবনের দীর্ঘতম অংশ ব্যয়িত হয়েছে এই মানুষটির ছায়াতলে, বয়স ৪৭ হয়ে গেলেও তার চোখে আজীবনই ১৩ বছরের বালক রয়ে যাব, যদিও দুজনের বয়সের ব্যবধান মাত্র ছয় বছর। একটি ছয় বছরের অবুঝ শিশু যখন ৩৬ বছরের পরিপক্বতায় তার সদ্যোজাত ভাইয়ের দায়িত্ব তুলে নেয় সেই দৃশ্যটা কল্পনা করতে কেমন লাগে?
[email protected]

একজন বাইচান্স প্রচ্ছদশিল্পীর আবার কী কথা? চিন্তা ও ঘটনার জটিল ঘন ঘটার বিমূর্তায়ন কেন যে শিয়ার হুইলের ধারালো প্রাপ্তের সাথে লেপ্টে গেল, সে রহস্য রহসাবৃতই থাকা! হবে, গল্পগুচ্ছের ‘ষৎকো’ যখন অনিশ্চয়তার লতানো ভবিতব্যে নিজের গন্তব্য খুঁজে ফেরে, বিমূর্ত থেকে সে। অনিবাৰ্যভাবে জায়গা করে নেয় প্রচ্ছদের কেন্দ্রীয় রিয়েল এস্টেট, মূর্তরূপে।

মূল ছবিগুলো অন্তর্জলের, কৃতজ্ঞ সেই অজানা শিল্পীদের প্রতি, যারা সব ধরনের ব্যবহারের জন্য এত লোককে উন্মুক্ত করে দিয়েছেন।

Customer Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “বীক্ষণ প্রান্ত”

Your email address will not be published.