Showing 41–60 of 326 results

  • আল্লামা ইকবালের মেটাফিজিকস

    মোহাম্মদ ফজলে রাব্বি
    পড়ছেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ধর্মতত্ত্ব অনুষদের আল-হাদীস এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগে, ৩য় বর্ষে। কোরান ও মানুষ ব্যতীত সবকিছুতে অনাগ্রহ দেখানোর আগ্রহ স্বভাবে প্রবল হয়ে আছে। লার্নিং ও আনলার্নিং প্রসেসের সমান্তরাল অথচ আপাত-বিপরীতমুখী প্রবণতা প্রণয়ের সুখ ও যাতনার মতো তাড়িত করলে বুঁদ হয়ে ফিজিকাল ও মেটাফিজিকাল বিষয় অনুবাদ করতে থাকেন।

    ৳ 170৳ 200
  • আশীফ এন্তাজ রবির পাঁচটি বই

    আমার নাম আশীফ এন্তাজ রবি। জন্ম ২১ আগস্ট ১৯৭৭। তবে অন্য অনেকের মতো আমারও একটা সার্টিফিকেট জন্মসাল আছে, ২৪.১০.১৯৭৯। নটরডেম কলেজে পড়ার সময় জনৈক বালিকাকে মুগ্ধ করার দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে একটা উপন্যাস লিখে ফেলেছিলাম। একদিন জলসিঁড়ি নামক উপন্যাসটি সেই বালিকাকে দ্রবীভূত করতে পারেনি। লেখক হিসেবে সেই দিন থেকেই আমি ব্যর্থ। ব্যর্থতাকে সহজভাবে মেনে নিয়ে আমি অন্য কাজকর্মে মনোনিবেশ করি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হবার পর হুট করে বিয়ে করে ফেলি। সংসার চালানোর জন্য টিউশনির চেষ্টা করি। একটা টিউশনি জুটেও যায়। ছাত্র ইন্টারমিডিয়েটে বিজ্ঞানবিভাগে পড়ে। প্রথম দিন তাকে নিউটনের গতিসূত্র বোঝাই। মাস্টার হিসেবে আমি কেমন এটা পরখ করার জন্য ছাত্রের বাবা পাশে বসে ছিলেন। ছাত্রটি নিউটনের গতিসূত্র চমৎকারভাবে ধরে ফেললেও তার ক্লাস এইট পাশ বাবা ব্যাপারটার আগামাথা কিছুই বুঝলেন না। কাজেই প্রথমদিনেই টিউশনি থেকে বাদ পড়ে গেলাম। এরপর শুরু করলাম পত্রিকায় লেখালেখি। শুধু টাকার জন্য প্রথম আলো পত্রিকায় দুই হাতে লেখা শুরু করলাম। সেই লেখালেখির জেরেই যুগান্তর পত্রিকায় চাকরি পেয়ে যাই । টানা ১৩ বছর সেখানে সাংবাদিকতা করি। যুগান্তরে থাকার সময় জনৈক প্রকাশক আমার সাথে যোগাযোগ করেন। তিনি আমার একটি বই বের করতে চান। পুরনো ব্যর্থতার কথা ভুলে আমি বই বের করতে রাজি হয়ে যাই। চার মাস ঘুরানোর পর চারটি ছোট গল্প তার হাতে তুলে দেই। প্রকাশক বিরস বদনে বলেন, এইটুকু দিয়ে তো দুই ফর্মাও হবে না। প্রকাশককে উদ্ধার করার জন্য আমি আরও দুইজন তরুণ লেখককে জোগাড় করি, যারা লম্বা লম্বা গল্প লিখতে পারেন। তিনজনের বারোটি গল্প মিলে বের হয়, তিন তরুণের গল্প। এরপরের বছর একই কায়দায় ত্রয়ী নামে আরেকটি গল্পগ্রন্থ বের হয়। আশ্চর্যজনকভাবে প্রথম বই তিন কপি, দ্বিতীয় বইটিও সর্বমোট তিন কপি বিক্রি হয়। লেখক তিনজন থাকায় এই দারুন সাফল্য। তিনে মিলে করি কাজ, হারিজিতি নাহি লাজ।
    এরপর টানা আট বছর আমি কোনো বই ফাঁদার কথা স্বপ্নেও ভাবিনি।
    তবু স্বভাবদোষে বের হলো, কাগজের নৌকা। এখন নৌকাডুবির অপেক্ষা।
    লেখক পরিচিতিতে ভালো ভালো কথা লেখার নিয়ম। অধিকাংশক্ষেত্রে লেখক নিজেই নিজের ঢোল ফাটিয়ে ফেলেন। আমার কোনো ঢোল নেই, তাই ফাটাতে পারলাম না। আমি দুঃখিত।

    ৳ 1,580
  • আসিফ সিবগাত ভূঞায়ের চারটি বই

    প্রথম যা জানা দরকার— আসিফ সিবগাত ভূঞা মাদ্রাসা লাইনের ছাত্র নন। তার পড়াশোনা ‘জেনারেল’ লাইনে। ছাত্র হিসেবে খুব আহামরি না হলেও তার ভালো ভালো জায়গায় পড়াশোনা করার সৌভাগ্য হয়েছে। সেইন্ট জোসেফ স্কুল থেকে এসএসসি, ঢাকা কলেজ থেকে এইচএসসি এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএ থেকে তিনি বিবিএ সম্পন্ন করেন। এরপর তিনি বহু দিন আর পড়াশেনা না করে এখন অর্থনীতির ওপর মাস্টার্স করছেন— ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে।
    আইবিএতে পড়ার সময় তিনি এক বন্ধুর বাড়িতে ইসলামি আলোচনা শুনতে যান এবং সেখানে গিয়ে তার ইসলামের প্রতি নতুন করে ভালোবাসা জন্মায়। তিনি ধর্মীয় দায়িত্বগুলো কমবেশি পালন করার পাশাপাশি ইসলাম নিয়ে ভালো করে জানার ব্যাপারে আগ্রহ বোধ করেন। গত প্রায় ১৫ বছর তিনি ইসলামি জ্ঞান নিয়ে ধাক্কাধাক্কি করেছেন— কিছুটা অন্যের সাহায্যে, কিছুটা নিজের চেষ্টায়।
    ২০০৯ সালে তিনি কাতারে চলে যান, কাতার ইউনিভার্সিটির একটি এক বছরকালীন আরবি ভাষার কোর্স করতে। আরবি ভাষায় কিছুটা দক্ষতা অর্জন করে তিনি সেটা দিয়ে ইসলামের বিভিন্ন শাস্ত্রের প্রাথমিক পাঠ নেয়া শুরু করেন। সম্প্রতি মিশকাহ ইউনিভার্সিটি নামক একটি অনলাইন বিশ্ববিদ্যালয়ে তিনি নতুন করে আরেকটি ব্যাচেলর প্রোগ্রামে ইসলামিক স্টাডিজ নিয়ে পড়ছেন। এখানে মিসরের বিখ্যাত ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় আযহার ইউনিভার্সিটির বেশ কয়েকজন প্রফেসরের সান্নিধ্যে তার জ্ঞান অর্জন করার সুযোগ হয়েছে।
    ফেসবুকে আসিফ এখন এক বিরাট কুতুব। তাকে ফলো করতে পারবেন এই প্রোফাইলে—
    www.facebook.com/asifshibgat.bhuiyan

    ৳ 1,511
  • আহমেরিকা

    আনোয়ার ইকবাল, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থাপত্য বিভাগের স্নাতক। স্নাতকোত্তর পর্যায়ে লেখাপড়া করেছেন নগর পরিকল্পনা ও ব্যবসা প্রশাসনে। ছাত্র হিসেবে আশির দশকের শুরুতে আমেরিকাতে আসেন। সেই থেকে এই দেশে বসবাস। লেখালেখি করেন সখে, প্রায় পাঁচ দশক ধরে। সেগুলোর প্রকাশনা মূলত পত্রপত্রিকা, সামাজিক মাধ্যম ও বিভিন্ন সাময়িকীতেই সীমাবদ্ধ।
    পেশায় একজন স্থপতি আনোয়ার ইকবালের নিবাস ও কর্মস্থল যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়াতে।

    ৳ 425৳ 500
  • ইকিগাই

    ইউসুফ মুন্না। জন্ম দক্ষিণের দ্বীপ মাতারবাড়ীতে। আর বেড়ে ওঠা চট্টগ্রামে। চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শেষে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন অধ্যয়ন বিভাগে স্নাতক করছেন। বছর ছয়েক আগে ব্লগিংয়ের মাধ্যমে মূলধারায় লেখালেখির শুরু। পরবর্তী সময়ে বেশ কয়েক বছর চট্টগ্রামের একটি স্থানীয় দৈনিকের বিজ্ঞান পাতায় লিখেছেন। বর্তমানে সমসাময়িক বিষয়াবলি নিয়ে একটি ইংরেজি দৈনিকে নিবন্ধ লেখেন। পাশাপাশি প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী হিসেবে যুক্ত আছেন কিশোরভিত্তিক সৃজনশীল প্ল্যাটফর্ম Reflective Teens এ। ইকিগাই; জাপানিদের দীর্ঘ ও সুখী

    ৳ 227৳ 267
  • ইমিউন সিস্টেম

    রুহশান আহমেদের জন্ম ১৯৯২ সালে ঢাকায়। বাবার চাকরির সূত্রে শৈশব এবং কৈশোর কেটেছে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে। ছোটবেলা থেকেই বাবার বইয়ের সংগ্রহ দেখে দেখে পড়ার প্রতি আগ্রহ জাগে, যে আগ্রহ একসময় লেখার দিকেও সংক্রমিত হয়। কৈশোরে লেখা অনেকগুলো ছড়া স্যাটায়ার ম্যাগাজিন উন্মাদ-এর বিভিন্ন সংখ্যায় প্রকাশিত হওয়ার পর তার আত্মবিশ্বাস আরও বেড়ে যায়।
    প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা শেষ করেন শাবিপ্রবির জিন প্রকৌশল ও জৈব প্রযুক্তি বিভাগে। পড়ালেখার পাশাপাশি বিজ্ঞান সংগঠন ‘সাস্ট সায়েন্স অ্যারেনা’র সাথে যুক্ত ছিলেন। সমমনা মানুষদের সাথে থেকে বিজ্ঞান নিয়ে লেখার উদ্দীপনা পান। তখন থেকেই লিখতে শুরু করেছেন বিজ্ঞান ব্লগ এবং জিরো টু ইনফিনিটি পত্রিকায়। এছাড়াও বায়ো-বায়ো-১ ফাউন্ডেশন এবং ক্যানসি রিসার্স ইন্সটিটিউটের সাথে থেকে তার বেশ কিছু গবেষণা প্রবন্ধ আন্তর্জাতিক জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে।
    পেশাগত জীবনে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে সিনিয়র সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কাজ করছেন।

    ৳ 238৳ 280
  • ইমোশনাল ইন্টেলিজেন্স

    সায়েদ আশরাফ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগ থেকে ইন্ডাস্ট্রিয়াল-অর্গানাইজেশনাল সাইকোলজি নিয়ে পড়াশোনা শেষে কর্মজীবনে একদিকে যেমন বিশেষ শিশুদের নিয়ে কাজ করছেন, অন্যদিকে ইমোশনাল ইন্টেলিজেন্স, স্ট্রেসের মত বিষয় নিয়ে বহুব্রীহি, আপস্কিল-সহ একাধিক অনলাইন প্ল্যাটফর্মে কোর্স ও ট্রেনিং করাচ্ছেন। এছাড়াও তিনি বিভিন্ন সময়ে ইনোভেশন ফর পভার্টি একশন, রাইজ আপ ল্যাবস, গ্রেস, থিংকডেমি সহ অন্যান্য বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সাথে সাইকোলজিস্ট, ট্রেইনার ও কনসালট্যান্ট হিসেবে কাজ করেছেন।

    নাসরিন সুলতানা শীলা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করে বর্তমানে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছেন। পাশাপাশি বহুব্রীহি-সহ একাধিক ই-লার্নিং প্ল্যাটফর্মে কোর্স-ইন্সট্রাকটর হিসেবেও কাজ করছেন। তিনি লেখালেখি করতে খুব ভালোবাসেন। বেশ কয়েক বছর ধরে মধুপোক-এর সাথে যুক্ত আছেন অনুবাদক ও সহকারী সম্পাদক হিসেবে। ময়ূরপঙ্খি প্রকাশনা থেকে তার অনূদিত সাগর তীরে, চিতা আর ছাগল এবং রংধনুর শেষ কোথায়? বইগুলো প্রকাশিত হয়েছে।

    ৳ 305৳ 360
  • ইমোশনাল মার্কেটিং

    মুনির হাসান

    মুনির হাসানের জন্ম চট্টগ্রামে। পড়ালেখাও সেখানেই— সেন্ট মেরিজ, মুসলিম এডুকেশন সোসাইটি, মুসলিম হাইস্কুল ও চট্টগ্রাম কলেজ। এরপর বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে। পাস করে দীর্ঘদিন সেখানেই কর্মজীবন— পরে জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচি, বিশ্বব্যাংক ইত্যাদিতে কাজ করেছেন। দৈনিক সংবাদের সাপ্তাহিক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির ফিচার পাতায় লেখালেখির মাধ্যমে সাহচর্য পেয়েছেন বিজ্ঞান-লেখক ও বিজ্ঞানকর্মী আ. মু. জহুরুল হক, আবদুল্লাহ আল-মুতী, শরফুদ্দিন এবং এ আর খানের। তাদের অনুপ্রেরণায় নিজেকে বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণের কর্মী হিসেবে গড়ে তোলার চেষ্টা করেছেন। ১৯৯৫-৯৮ সালে ভোরের কাগজ এবং ১৯৯৮ সাল থেকে অদ্যাবধি দৈনিক প্রথম আলোয় বিজ্ঞান ও গণিতবিষয়ক ফিচার পাতার সম্পাদনা করছেন। কাজ করছেন গণিত নিয়ে— বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড কমিটির সাধারণ সম্পাদক। গণিতের পাশাপাশি বিজ্ঞান ও কম্পিউটার প্রোগ্রামিং প্রসারের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। ২০১১ সালে তার হাতেই সূচনা হয় ‘চাকরি খুঁজব না, চাকরি দেব’নামের প্ল্যাটফর্ম। ফেসবুকে একটি গ্রুপের মাধ্যমে শুরু হয়ে এখন এটি প্রায় ৭৮ হাজারের বেশি উদ্যোক্তা, হবু উদ্যোক্তা ও উদ্যোক্তা কর্মকাণ্ডের বিস্তৃত কর্মযোগের কেন্দ্র হয়ে উঠেছে। দেশে উদ্যোক্তাবান্ধব একটি ইকোসিস্টেম গড়ে তোলা এবং উদ্যোক্তাদের সহায়তা দেওয়ার জন্য কাজ করে চলেছেন নিরলস। স্ত্রী সামিয়া আখ্‌তার, পুত্র ফারদীম রুবাই ও কন্যা ওয়ামিয়া বিদুষীকে নিয়ে মুনির হাসান ঢাকায় থাকেন। আদর্শ থেকে প্রকাশিত গ্রন্থ পড়ো পড়ো পড়ো শরবতে বা জিমাত গ্রোথ হ্যাকিং মার্কেটিং

    ৳ 227৳ 267
  • ইয়াম্মি কুকবুক

    তামান্না ঐরশানী রিয়ার জন্ম চট্টগ্রামে, ১৯৯৪ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি। যদিও তার ছোটবেলা কেটেছে ফেনীতে তার দাদার বাড়িতে। তিন বোনের মধ্যে মেজো রিয়া এসএসসির পর ঢাকায় এসে ফিন্যান্স ও ব্যাংকিংয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন।
    ছোটবেলায় বাবার জন্য চা বানানো, গোসলের জন্য পানি গরম করা— এসব কারণে চুলার কাছে যাওয়া হতো। আর ছোটবেলা থেকেই মিষ্টির প্রতি ছিল ভীষণ আগ্রহ। স্কুলের পাশে মিষ্টির দোকানগুলোতে কেক পেস্ট্রি দেখে সেগুলো কীভাবে বানানো হয় তা জানার ইচ্ছে হতো তার। আস্তে আস্তে কেক নিয়ে অনেক ঘাঁটাঘাঁটি শুরু করলেন তিনি। বিভিন্ন রান্নার অনুষ্ঠান, পত্রিকার রেসিপি, অনলাইন ওয়েবসাইট ইত্যাদি দেখে কেক বানানো শুরু করলেন। প্রশিক্ষণও নিয়েছেন কয়েক দিন।
    ২০১৬ সালে শখের বশে ইউটিউবে একটি চ্যানেল খুলে দেয় তার স্বামী। সেখানে বিভিন্ন রকম কেক ও ডেজার্টের রেসিপি করে দেখান রিয়া। তার চ্যানেলে রেসিপি আছে প্রায় ৮০০-এর বেশি। চ্যানেলটির গ্রাহক প্রায় ২৬ লাখ এবং চ্যানেলের ভিডিওগুলো দেখা হয়েছে প্রায়ই ৩৮ কোটিবার। শুধু বাংলাদেশ নয়, পার্শ্ববর্তী দেশেও এই চ্যানেলের জনপ্রিয়তা অনেক।
    বেকিং লাভার রিয়া তার স্বামীকে নিয়ে ঢাকাতেই থাকেন। বেড়ানো, মুভি দেখা ও বেকিং করাই তার ভালো লাগা।

    ৳ 340৳ 400
  • ইংরেজি সাহিত্যের ইতিহাস

    আলোকচিত্র: শেখ সোহেল \ সাবিদিন ইব্রাহিম
    ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগ থেকে অনার্স ও মাস্টার্স সম্পন্ন করেছেন সাবিদিন ইব্রাহিম। বিশ্বসাহিত্য চষে বেড়ানোর উচ্চাশা নিয়ে ইংরেজি সাহিত্য পড়েছেন এবং ছাত্রজীবন থেকেই বাংলা ও ইংরেজিতে লেখালেখি করে যাচ্ছেন। ২০১২ সালে ‘In Praise – In Memory – In Ink’ নামে, ২০১৩ সালে ‘A Poet’s View of Being’ শিরোনামে কানাডা থেকে প্রকাশিত দুটি কবিতার সংকলনে যথাক্রমে ২টি ও ৭টি ইংরেজি কবিতা স্থান পেয়েছিল।
    ২০১৫ সালে বাংলা একাডেমীর সাহিত্য পত্রিকা ‘উত্তরাধিকার’-এর ৬১তম সংখ্যায় বারটি জেন কবিতার অনুবাদ প্রকাশিত হয়েছে। ২০১৭ ও ২০১৮ সালে প্রকাশিত দুটি অনুবাদ গ্রন্থ; সান জু’র ‘দ্য আর্ট অব ওয়ার’ এবং সেনেকা’র ‘অন দ্য শর্টনেস অব লাইফ’ পাঠক ও বোদ্ধামহলে বেশ সাড়া ফেলেছে।
    উল্লেখযোগ্য অনুবাদকর্মের মধ্যে রয়েছে: বিশ্বখ্যাত সাময়িকী প্যারিস রিভিয়্যু কর্তৃক গৃহীত ও প্রকাশিত- হোর্হে লুই বোর্হেস, হারুকি মুরাকামি ও পাবলো নেরুদার সাক্ষাতকার। এছাড়া প্রকাশের অপেক্ষায় রয়েছে অতোঁয়ান দ্য স্যান্ত একজুপেরির ‘দ্য লিটল প্রিন্স’।
    বাংলাদেশ স্টাডি ফোরাম (বিডিএসএফ) এর প্রতিষ্ঠাতা কেন্দ্রীয় সমন্বয়ক। সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন thebdsf.com এ।
    সাবিদিন ইব্রাহিম কুমিল্লা জেলার ব্রাক্ষণপাড়া থানার শিদলাই গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। বড় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পুরো দেশ ও পুরো বিশ্বকে নিজের জন্মস্থান মনে করছেন।
    যেকোনো ধরণের পরামর্শ, সমালোচনা, প্রশ্ন করতে যোগাযোগ করুন:
    mail: [email protected]
    fb: https://www.facebook.com/sabidin.ibrahim/

    ৳ 255৳ 300
  • ইসলামে চিন্তার উদারতা

    হুমায়ুন আইয়ুব
    জন্ম: ১৫ এপ্রিল, ১৯৮৬
    হিলচিয়া, বাজিতপুর, কিশোরগঞ্জ।
    বাবা: আইয়ুব আলী
    মা: রওশন আরা।

    সাহিত্য সংগঠন শীলন বাংলাদেশের সাবলীল তরুণ হুমায়ুন আইয়ুব। ২০০৫-এ ছড়ার মাধ্যমে লেখালেখির হাতেখড়ি হলেও ঋদ্ধ হয়েছেন গদ্যে।
    প্রকাশিত হয়েছে শিশুসাহিত্যের চারটি গ্রন্থ : ছোটদের আল্লামা ইসহাক ফরিদী (২০০৭), ফুলপাখিদের নবী (২০১০), ছোটদের হজরত আবদুল কাদের জিলানি রহ. (২০১৪), ছোটদের হজরত হজরত শাহজালাল রহ. (২০১৪)। এছাড়াও অনুবাদ করেছেন চাঁদের ঘোষণা (২০১২)।
    সম্পাদনা করেছেন মাসিক কাবারপথে, মাসিক রাহমানী পয়গাম। মিডিয়া পরিচালক হিসাবে কর্মরত ছিলেন বাংলাদেশ কওমি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড (বেফাক)-এ।
    বর্তমানে কাজ করছেন নাঈমুল ইসলাম খান সম্পাদিত দৈনিক আমাদের অর্থনীতি ও আমাদের সময় ডট কম-এ। সম্পাদনা করছেন মাসিক ম্যাগাজিন ইসলামি চিন্তার কাগজ।
    তরুণ আলেম হুমায়ুন আইয়ুব ঢাকার মুগদায় জামিয়াতুস সালাম মাদরাসার প্রিন্সিপাল।

    ৳ 229৳ 270
  • উচিৎ শিক্ষা

    শিশির ভট্টাচার্য্য
    জন্ম ৪ঠা আগস্ট, ১৯৬৩, চট্টগ্রামের কুমিরা গ্রামে। ভাষাবিজ্ঞানে পি.এইচ.ডি. (২০০৭) করেছেন কানাডার মন্ট্রিয়ল বিশ্ববিদ্যালয়ে। প্যারিসের সর্বোন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাষাবিজ্ঞানে এম.ফিল. (১৯৯৫) ও এম. এ. (১৯৯৪) এবং ইন্ডোলজিতে এম. এ. (১৯৮৮) করেছেন।
    আগ্রহের বিষয় ভাষা ও ব্যাকরণ, সাহিত্যের অনুবাদ, সমাজ, মহাকাব্য ও ইতিহাস। ভাষা ও ব্যাকরণ বিষয়ে জাতীয়, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক জার্নালে খান চল্লিশেক প্রবন্ধ ছাড়াও প্রকাশিত হয়েছে দশটি পুস্তক যার মধ্যে সঞ্জননী ব্যাকরণ (১৯৯৮), অন্তরঙ্গ ব্যাকরণ (২০১৩), জার্মানি থেকে প্রকাশিত Word Formation in Bengali: A Whole Word Morphological Description and its Theoretical Implications (২০০৭), গুরু রজনীশের জীবন-দর্শন-কর্মের উপর ফরাসি ভাষায় রচিত পুস্তক Bhagwan et son monde orange (১৯৯১), ফরাসি কবি আপোলিন্যার (১৯৯০) ও র্যাঁবোর (১৯৯১, ২০১৩) কবিতার বঙ্গানুবাদ, জীবনানন্দের কবিতার ফরাসি অনুবাদ (১৯৯১), বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের উপর রচিত ব্যার্নার হেনরি লেভির পুস্তকের বঙ্গানুবাদ ‘বাংলাদেশ যখন স্বাধীন হচ্ছিল’ (২০১৪) অন্যতম।
    ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউটে অধ্যাপনা করছেন ১৯৮৯ সাল থেকে। প্রিয় অবসরকর্ম: গল্প বলা ও শোনা, চঁহ ও কৌতুকচর্চা করে জমিয়ে দুবেলা আড্ডা দেওয়া।

    ৳ 255৳ 300
  • উদ্যোক্তাদের হিসাববিজ্ঞান

     

    পুরো নাম মোহাম্মদ মঈন উদ্দিন রেজা (নাদিম)। সবার কাছে পরিচিত নাদিম নামে। জন্ম ১৯৮৯ সালের ১৭ ডিসেম্বর ঢাকার সবচেয়ে কাছের মফস্বল শহর বংশী নদী বিস্তৃত সাভার পৌর এলাকায়। বাবা মরহুম মোঃ আব্দুস সালাম ও মা মরহুমা মনোয়ারা বেগম। চার ভাই ও পাঁচ বোনের মধ্যে সবচেয়ে ছোট সন্তান নাদিম জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল ও কলেজ থেকে ২০০৭ সালে মাধ্যমিক পাস করেন। ঢাকা সিটি কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় মেধার স্বাক্ষর রেখে ২০০৯-১০ সেশনে ভর্তি হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগে। লেখাপড়ায় অসাধারণ ফলাফলের স্বীকৃতিস্বরূপ ডিনস অ্যাওয়ার্ডসহ ২০১৩ সালে বিবিএ এবং একই বিভাগ থেকে ২০১৪ সালে এমবিএ ডিগ্রি অর্জন করেন। ইউনিভার্সিটি অব ঢাকা অ্যাকাউন্টিং ফোরামের প্রেসিডেন্ট হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন ছাত্র অবস্থায়।
    ২০১৫ সাল থেকে বাংলাদেশের প্রথম সারির পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ‘বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস (বিইউপি)’-তে একজন শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। বর্তমানে তিনি বিইউপিতে সহকারী অধ্যাপক হিসেবে কাজ করছেন। একাডেমিক দায়িত্বের পাশাপাশি নাদিম বিইউপিতে ছাত্রছাত্রীদের বিভিন্ন ক্লাবের মডারেটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এ ছাড়া বিভিন্ন দেশীয় ও আন্তর্জাতিক জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে তার বেশ কয়েকটি মৌলিক গবেষণার কাজ। ২০১৯ সালের অমর একুশে বই মেলায় নাদিমের প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘শহরের গল্পে জোনাকির কবিতা’ প্রকাশিত হয়।
    লেখকের সহধর্মিণী তাহমিনা আক্তার পেশায় একজন কূটনীতিক। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন সহকারী সচিব হিসেবে কর্মরত আছেন।

    ৳ 204৳ 240
  • উন্নয়ন বিভ্রম

    জিয়া হাসান উন্নয়ন অর্থনীতি-বিষয়ক গবেষক। অর্থনীতির পাশাপাশি রাজনীতি, সমাজ ও ভূ-রাজনীতি নিয়ে কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নে তার বিশ্লেষণ আলোচনার জন্ম দিয়েছে।
    জিয়া হাসানের লেখালেখির ক্ষেত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, এবং পত্রিকার সম্পাদকীয়। সরকারি চাকুরি, দেশি-বিদেশি করপোরেশন এবং ব্যবসায় লিডারশিপ পজিশনে তার ২০ বছরের অভিজ্ঞতা রয়েছে। বর্তমানে তিনি জার্মানির ফেডারেল শিক্ষা ও গবেষণা মন্ত্রণালয়ের (বিএমবিএফ) অধীনে জার্মান কারিগরি শিক্ষার মানোন্নয়ন সংক্রান্ত একটি প্রকল্পে গবেষণায় নিয়োজিত।
    ব্যক্তি জীবনে জিয়া হাসান দুই পুত্র এবং এক কন্যা সন্তানের জনক।

    ৳ 646৳ 760
  • এক মুক্তিযোদ্ধার স্মৃতিকথা

    ইঞ্জিনিয়ার আবুল হাশেম ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৭৭ সাল থেকে বাংলাদেশ রেলওয়ের পুরকৌশল বিভাগে কর্মরত থেকে ২০১৩ সালে অবসর গ্রহণ করেন। এর মধ্যে তিনি মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে অতিরিক্ত তিন বছর চাকুরি করার সুযোগ পেয়েছেন।
    তিনি দুই সন্তানের জনক। তার স্ত্রী রইসুল আম্বিয়া একজন সুগৃহিণী। ছেলে জামশেদ আলম একজন ব্যবসায়ী এবং মেয়ে রোখসানা আক্তার রুপী ইংরেজি ভাষার একজন স্বনামধন্য শিক্ষক ও প্রসিদ্ধ লেখক।
    লেখক আবুল হাশেম তার দীর্ঘ কর্মজীবনে সততা আর নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি লেখালেখি করে, বই পড়ে, এবাদত-উপাসনায় একাগ্র হয়ে তার অবসর সময় কাটাচ্ছেন। তার ইহকাল ও পরকালের প্রশান্তি, সুস্থতা ও সাফল্যের জন্য তিনি সকলের কাছে দোয়াপ্রার্থী।
    যোগাযোগ
    https://trainingwithrokhsana.com
    01711-184883, 01833-367994

    ৳ 170৳ 200
  • একটু গভীরে এসো

    নবায়ন পারভেজ ছোটন। ১৯৮৮ সালের ২৯ ফেব্রুয়ারি দেশের সর্বপশ্চিমের জেলা চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে জন্ম।
    ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।
    বর্তমানে ঢাকার একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেন।
    গত এক দশক ধরে কবিতা লিখে চলছেন। সামাজিক মাধ্যম ও কবিতার ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হওয়া অসংখ্য কবিতা পাঠকদের মুগ্ধ করেছে। সেই অনুপ্রেরণা থেকেই এই কাব্যগ্রন্থের জন্ম।

    ৳ 127৳ 150
  • এলা হি বরষা

    জন্ম ১৯৭১ সাল, সন্দ্বীপে। প্রথম কাব্য এলা হি বরষা। নতুন বাংলা কাব্যভাষার কারণে তুমুল আলোচিত হন তিনি। সম্প্রতি বাংলাভাষার সীমানা ছাড়িয়ে স্প্যানিশ, ইতালিয়ান, সার্বিয়ান, স্লোভেনিয়ান ও ইংরেজিতে অনূদিত হয় তাঁর কবিতা। প্রকাশিত হয় বেলগ্রেডের আলমা প্রকাশনী থেকে Absence of Eye ও ইতালি থেকে Feather of Wings নামে দ্বিভাষিক কাব্যগ্রন্থ। বর্তমানে কাব্যগ্রন্থ সাতটি। ২০১৯ সালে প্রকাশ করেছেন শিল্প-সমালোচনার বই নভেরার রূপ। সম্পাদিত বই চাড়ালনামা ও দর্শনভাষার কাগজ জাতীয় সাহিত্য।

    ৳ 230৳ 270
  • এলিয়েনের খোঁজে

    আনোয়ার হোসেন ১৯৫৮ সালে ফরিদপুর শহরে জন্মগ্রহণ করেন। ফরিদপুর মিশন স্কুল থেকে প্রাথমিক, জিলা স্কুল থেকে ১৯৭৩ সালে মাধ্যমিক ও সরকারি রাজেন্দ্র কলেজ থেকে ১৯৭৫ সালে উচ্চমাধ্যমিক পাশ করেন। এরপর বৃত্তি নিয়ে ১৯৭৬ সালে তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়নে গমন করেন ও বর্তমান ইউক্রেনের ওডেসা ন্যাশনাল পলিটেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটিতে ১৯৮২ সাল পর্যন্ত অধ্যয়ন করে তড়িৎ প্রকৌশলে গ্রাজুয়েশন ও মাস্টার্স ডিগ্রি লাভ করেন৷ দেশে ফিরে জেনারেল ইলেকট্রিক ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি, পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড এবং কনসাল্টিং ফার্ম ‘প্রকৌশল উপদেষ্টা লিমিটেড’-এ চাকুরি করেন৷
    ২০০১ সাল থেকে কানাডার টরন্টোতে স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন। তিনি ওন্টারিও প্রদেশের একজন প্রফেশনাল ইন্জিনিয়ার৷ পেশার বাইরে মহাকাশ বিষয়ে পড়াশোনা করেন। তিনি কানাডার রয়্যাল এস্ট্রোনমিক্যাল সোসাইটির সদস্য৷ মহাবিশ্বের ইতিকথা নামে তার একটি বই ইতিপূর্বে প্রকাশিত হয়েছে। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি বিবাহিত ও এক পুত্রসন্তানের জনক৷

    ৳ 255৳ 300
  • ওয়েব ডিজাইন শিখে ডলার আয়

    মো. নাসিম সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘ফ্রিল্যান্সার নাসিম’ হিসেবে পরিচিত। তিনি শিক্ষাজীবনের পাশাপাশি ২০১১ সালে ফ্রিল্যান্সিং ও ২০১৮ সালে ইউটিউবে কন্টেন্ট তৈরি করা শুরু করেন। বর্তমানে ফেসবুক ও ইউটিউবে তার অনুসারীর সংখ্যা মিলিয়ন পেরিয়েছে। ২০১৬ সালে জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস ফ্রিল্যান্সার ডটকম সারা বিশ্বের সব দেশের মধ্যে তাদের ২০ মিলিয়ন রেজিস্টার্ড ফ্রিল্যান্সার মাইলফলকের একটি ভিডিও ডকুমেন্টারিতে ১০-১২ জনের শর্টলিস্টেড তালিকায় তাকে একজন তরুণ ও সফল ফ্রিল্যান্সার হিসেবে তুলে ধরে।
    বইমেলা ২০২০-এ তিনি তার প্রথম বই (ফ্রিল্যান্সিং: ইন্টারনেট থেকে আয়) রচনা করে রকমারি ডটকমে সেরা লেখক ও বেস্ট সেলার তালিকায় দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেন।
    এ ছাড়া ২০১৯ সালে তিনি ‘এফএন সফটওয়্যারস অ্যান্ড ইনস্টিটিউট’ নামে একটি সফটওয়্যার কোম্পানি ও কম্পিউটার ট্রেনিং ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করেন। যা থেকে বর্তমানে সারা বিশ্বের অনেক কোম্পানি ও বায়াররা তাদের সফটওয়্যার সার্ভিস নিয়ে থাকেন ও হাজারো ছাত্রছাত্রী কম্পিউটার ও ফ্রিল্যান্সিং শিখছেন।

    ৳ 255৳ 300