ইংরেজি সাহিত্যের ইতিহাস

৳ 150৳ 300

You Save: ৳ 150 (50%)

বাংলাদেশ নামক এই দেশটিতে বসে আমরা কেন ইংরেজি সাহিত্য পড়ব? সাহিত্যের ইতিহাসে এর জবাব আমরা পেয়ে যাব যদি মনোযোগ দিই। গ্রিক সাহিত্য প্রভাবিত করেছে তার পরবর্তী ইউরোপীয় প্রতিটি সাহিত্যকে। গ্রিকদের সব অর্জন নিজেদের করে নিয়ে রোমানরা সভ্যতার যে চাষ করল, তার সিলসিলা জারি ছিল তাদের পতনের পরও। রেনেসাঁর পিতৃভূমি ইতালি তার হাত ধরে জেগে ওঠে। ইতালির সাহিত্য-কবিতা থেকে আলো নিয়ে সমৃদ্ধ হয় ফরাসি সাহিত্য, প্রাণ পায় ইংরেজি সাহিত্য। রাজনীতিতে বিশ্বায়ন সাম্প্রতিক ঘটনা হলেও সাহিত্যে বিশ্বায়ন অনেক প্রাচীন। রেনেসাঁ-পরবর্তী সময়ে ইউরোপের এক ভাষার সাহিত্য, দর্শন প্রভাবিত করেছে অন্য দেশের সাহিত্য ও দর্শনকে।
আমাদের বাংলা সাহিত্যও শুরু থেকেই অন্য সাহিত্য থেকে নিয়েছে, আবার দিয়েছেও। আলাওলের পদ্মাবতী হিন্দি সাহিত্য থেকে নেওয়া, ফারসি সাহিত্য থেকে এসেছে প্রচুর, আরবি-উর্দু বলাই বাহুল্য। ইংরেজদের শাসনে যাওয়ার পর থেকে ইংরেজি ও ইউরোপীয় সাহিত্য থেকে এই লেনাদেনা চলছেই। বাংলা সাহিত্যে যে আধুনিক যুগ শুরুর কথা বলি, তা ইংরেজি সাহিত্য প্রভাবিত বাংলা সাহিত্যকেই বুঝি। সাহিত্যের কয়েকটি নতুন প্রকরণ বা ফর্ম যেমন নাটক, প্রহসন, সনেট ও উপন্যাস একেবারেই ইংরেজি ও ইউরোপীয় সাহিত্যের অনুকরণের মাধ্যমেই বিকশিত হয়েছে।
Book Info
Titleইংরেজি সাহিত্যের ইতিহাস
Authorসাবিদিন ইব্রাহিম
Publisherআদর্শ
ISBN978-984-8040-46-1
Edition১ম প্রকাশ ২০১৬
Number of Pages158
Countryবাংলাদেশ
Languageবাংলা

আলোকচিত্র: শেখ সোহেল \ সাবিদিন ইব্রাহিম
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগ থেকে অনার্স ও মাস্টার্স সম্পন্ন করেছেন সাবিদিন ইব্রাহিম। বিশ্বসাহিত্য চষে বেড়ানোর উচ্চাশা নিয়ে ইংরেজি সাহিত্য পড়েছেন এবং ছাত্রজীবন থেকেই বাংলা ও ইংরেজিতে লেখালেখি করে যাচ্ছেন। ২০১২ সালে ‘In Praise – In Memory – In Ink’ নামে, ২০১৩ সালে ‘A Poet’s View of Being’ শিরোনামে কানাডা থেকে প্রকাশিত দুটি কবিতার সংকলনে যথাক্রমে ২টি ও ৭টি ইংরেজি কবিতা স্থান পেয়েছিল।
২০১৫ সালে বাংলা একাডেমীর সাহিত্য পত্রিকা ‘উত্তরাধিকার’-এর ৬১তম সংখ্যায় বারটি জেন কবিতার অনুবাদ প্রকাশিত হয়েছে। ২০১৭ ও ২০১৮ সালে প্রকাশিত দুটি অনুবাদ গ্রন্থ; সান জু’র ‘দ্য আর্ট অব ওয়ার’ এবং সেনেকা’র ‘অন দ্য শর্টনেস অব লাইফ’ পাঠক ও বোদ্ধামহলে বেশ সাড়া ফেলেছে।
উল্লেখযোগ্য অনুবাদকর্মের মধ্যে রয়েছে: বিশ্বখ্যাত সাময়িকী প্যারিস রিভিয়্যু কর্তৃক গৃহীত ও প্রকাশিত- হোর্হে লুই বোর্হেস, হারুকি মুরাকামি ও পাবলো নেরুদার সাক্ষাতকার। এছাড়া প্রকাশের অপেক্ষায় রয়েছে অতোঁয়ান দ্য স্যান্ত একজুপেরির ‘দ্য লিটল প্রিন্স’।
বাংলাদেশ স্টাডি ফোরাম (বিডিএসএফ) এর প্রতিষ্ঠাতা কেন্দ্রীয় সমন্বয়ক। সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন thebdsf.com এ।
সাবিদিন ইব্রাহিম কুমিল্লা জেলার ব্রাক্ষণপাড়া থানার শিদলাই গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। বড় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পুরো দেশ ও পুরো বিশ্বকে নিজের জন্মস্থান মনে করছেন।
যেকোনো ধরণের পরামর্শ, সমালোচনা, প্রশ্ন করতে যোগাযোগ করুন:
mail: [email protected]
fb: https://www.facebook.com/sabidin.ibrahim/

Customer Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “ইংরেজি সাহিত্যের ইতিহাস”

Your email address will not be published. Required fields are marked *